স্মার্ট ইভাউচার কি? এটা কিভাবে কেনা যায়? এটা দিয়ে কিভাবে শপিং করতে পারবো?

– ইভাউচার একটি ডিজিটাল ভাউচার! আপনাকে এই ভাউচার অনলাইনে কিনতে হবে অনলাইন পেমেন্ট এর মাধ্যমে।
– আমাদের নির্দিষ্ট ভ্যালুর কিছু ইভাউচার রয়েছে। যেমনঃ ৳৫০০০, ৳১০০০০, ৳১৫০০০, এবং ৳২০০০০ মুল্যের।
– বর্তমানে এই ইভাউচারে ৪২% পর্যন্ত ছাড় চলছে ঈদ স্পেশাল অফারে।
– আপনি অনলাইন পেমেন্ট (NAGAD/নগদ অথবা SSL Payment/এসএসএল) এর মাধ্যমে ভাউচার সফলভাবে কিনতে পারলে পরবর্তীতে তা আমরা আপনার মোবাইল নম্বরে এসএমএস এর মাধ্যমে কেনাকাটার জন্য একটিভ করে দিবো।
– আপনি যত টাকা মুল্যের ভাউচার কিনবেন  সেই ভাউচার দিয়ে ঠিক তত টাকার শপিং করতে পারবেন আমাদের যেকোনো আউটলেট/শোরুম থেকে।
-এস এম এস দিয়ে ভাউচার একটিভ করে দেওয়ার পরবর্তী ৩০দিন পর্যন্ত ইভাউচারটি দিয়ে কেনাকাটা করতে পারবেন।
-আপনি আউটলেটে কেনাকাটা করে পেমেন্ট দেওয়ার সময় ভাউচার কোডটি ক্যাশ কাউন্টারে শো করলেই আপনি ভাউচার রিদিম করতে পারবেন। তাই কেনাকাটায় বেশি ছাড় পেতে এখনি ই-ভাউচার অর্ডার করুন।

 

নিয়ম ও শর্তাবলিঃ
– ডিমান্ড এর যেকোনো পন্যের কেনাকাটায় গিফট কার্ডটি ব্যবহার করা যাবে। (এক্সেসরিজ আইটেম ব্যতীত)
– গিফট কার্ডটি কার্ড নগদ টাকায় বিনিময় করা যাবে না।
– গিফট কার্ডগুলি একবার কেনা হয়ে গেলে ফেরতযোগ্য নয় (তবে গিফট কার্ড দিয়ে কেনা যেকোনো পন্য আমাদের চেঞ্জ পলিসি অনুযায়ী করা যাবে)
– গিফট কার্ডটি ছাড় বা অন্যান্য প্রচারমূলক অফারের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না।
– এই গিফট কার্ডটি নিশ্চিতকরণের 30 (দিন) পর্যন্ত একটিভ থাকবে।
– সফল পেমেন্টের পর ৩দিন এর মধ্যে শপিংয়ের জন্য গিফট কার্ডটি সক্রিয় করা হবে।
– গিফট কার্ডটি একক লেনদেনে সম্পূর্ণরূপে ব্যবহার করতে হবে। একজন একটি গিফট কার্ড ব্যবহার করে একাধিক আইটেম ক্রয় করতে পারেন। যদি মোট প্রদেয় মূল্য গিফট কার্ডের মূল্য ছাড়িয়ে যায় তবে অতিরিক্ত অর্থ নগদ, বিকাশ বা কার্ডে প্রদান করা যেতে পারে। কিন্তু যদি এমন কিছু অবশিষ্ট থাকে যা নগদ হিসাবে দাবি করা যায় না।
– আরো বিস্তারিত জানার জন্য হটলাইনে কল করুন: +৮৮০ ১৪০৪ ৮৮৪৪৩৩